ByAdmin

Apr 8, 2024
Spread the love

করিমগঞ্জ সিভিল হাসপাতালের মর্গে লজ্জাজনক কাণ্ড!

নাবালিকার লা**শের সঙ্গে শ্লী*ল*তা*হা*নী! গ্রেফতার যুবক

 

এক নর‌পিচা‌শের পাশ‌বিক ঘটনার স্বা‌ক্ষী হ‌য়ে রই‌লেন গোটা ক‌রিগঞ্জবাসী।মৃত্যুর পর রেহাই মিলল না মৃতদেহের।মর্গে ধর্ষণ করা হল মৃত দেহকে।প‌রে ধর্ষণের দায়ে গ্রেফতার করা হয়েছে এ‌তে জ‌ড়িত অঞ্জু রবিদাস নামের অভিযুক্তকে।

 

জানা গে‌ছে গত দু‌দিন আ‌গে পারিবারিক কলহের জেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় বাজারিছড়া এলাকার নবম শ্রেণীর এক নিষ্পাপ ছাত্রী।প‌রে আই‌নি প্রক্রিয়া হেতু তার মৃতদেহ করিমগঞ্জ সরকারি হাসপাতালের মর্গে রাখা হয় ময়নাতদন্তের জন্য।বিশেষ কারণ ছাড়া রাতে মরণোত্তর পরীক্ষার নিয়ম নেই।তাই মৃতদেহ রাখা ছিল মর্গে।র‌বিবার সকালে ময়নাতদন্ত করতে আসা চিকিৎসক মৃতদেহ দেখে চম‌কে উঠেন।কেননা মৃতের গোপনাঙ্গ ছিল ক্ষতবিক্ষত।এছাড়াও আঘাতের চিহ্ন ছিল অন্যত্র।বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নজরে আনেন চিকিৎসক।জানানো হয় পুলিশকে। পুলিশের প্রাথ‌মিক তদ‌ন্তে ধরা প‌ড়ে মৃতদেহটি ধর্ষণ করা হয়েছে।ত‌বে তালা বন্ধ মর্গে কে করল এমন জঘন‌্যতম কাজ?মুহূর্তের মধ্যে তদন্ত শুরু করে পুলিশ।এ‌তে মর্গের চাবি যার হা‌তে ছিল তা‌কে ডে‌কে পাঠা‌নো হয়।প‌রে জানা যায় মর্গের দায়িত্বে থাকা লোকটির ভাই অঞ্জু রবিদাস এ কান্ড‌টি ঘ‌টি‌য়ে‌ছে।পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে অঞ্জু স্বীকার করেছে তার কুক‌র্মের কথা।অঞ্জুর এ‌হেন বক্তব্য শুনে হতবাক পুলিশও।


Spread the love

By Admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You missed